নিরুক্ত:

নিরুক্ত সম্পর্কে আলোচনা করা হল । নিরুক্ত কি পদসমূহ যাতে নিঃশেষে উক্ত হয়েছে, তাই নিরুক্ত। যাস্ক বিরচিত নিরুক্ত সমগ্র পৃথিবীতে ভাষাতত্ত্বের গবেষনার প্রথম নিদর্শন বললে অত‍্যুক্তি হয় না। নিরুক্ত বিভাগ নিরুক্ত তিনটি কান্ডে বিভক্ত- নৈঘণ্টূক বা নিঘণ্টূ নৈগম ও দৈবত। নিঘণ্টূকতে ৫ টি অধ‍্যায়, নৈগম কান্ডে ৬ টি অধ‍্যায় দৈবতকান্ডের ৬ টি অধ‍্যায়। নিঘণ্টূ কান্ড …

Read more

বৃহদ্দেবতা

বৃহদ্দেবতা সম্পর্কে আলোচনা করা হল । বৃহদ্দেবতা বৃহদ্দেবতা গ্রন্থখানি আচার্য শৌণক কর্তৃক রচিত। বৃহদ্দেবতা গ্রন্থখানি বিদ্বান সমাজে উপাঙ্গ নামে পরিচিত। বৃহদ্দেবতা যাষ্কের নিরুক্তের পরবর্তী এবং মহর্ষি কাত‍্যায়ন রচিত সর্বানুক্রমণী – এর পরবর্তীকালে রচিত হয়। বৃহদ্দেবতা গ্রন্থে আচার্য শ‍ৌনক বেদোক্ত বিভিন্ন কাহিনীকে মহাকাব‍্যের ভঙ্গিতে বর্ণনা করেছেন। এছাড়া পুরুষ ও মহিলা ঋষিদের নামের তালিকা, দেবতাদের তালিকা, দেবতাদের …

Read more

রামায়ণের রচনাকাল সম্পর্কে আলোচনা কর

রামায়ণের রচনাকাল সম্পর্কে আলোচনা করা হল । যদি কোন রামায়ণের রচনাকাল সম্পর্কে তথ্য বাদ থাকে তা হলে নিচে লিখুন । রামায়ণের রচনাকাল সংস্কৃত সাহিত্যের ইতিহাসে মহাকাব্য, নাটক, গদ্য ইত্যাদি রচনাকারের রচনাকাল নির্ণয় এক দুরূহ সমস্যা। এর কারণ সম্ভবত ভারতীয় লেখকদের ঐহিক জগত সম্বন্ধে উদাসীনতা। সংস্কৃত যে-কোনও গ্রন্থেরই রচনাকাল নির্ধারণ করতে হলে অনুমান নির্ভর যুক্তিপরম্পরার উপর …

Read more

মহাভারতের কাহিনী ও উপাখ‍্যান

মহাভারতের কাহিনী ও উপাখ‍্যান নিম্নে বর্ণিত হল । মহাভারতের বিভিন্ন গল্প তথা কাহিনী গুলি উপাখ্যান নামে বর্ণিত ।

বেদান্তদর্শন

বেদান্তদর্শন সম্পর্কে সামান্য কিছু আলোচনা করা হল । বেদান্তদর্শন বেদান্ত অর্থাৎ উপনিষদ বা বেদের জ্ঞানকান্ডের ভিত্তিতে ব্রহ্মসূত্র রচনা করে বাদরায়ন বেদান্ত দর্শন প্রতিষ্ঠা করেন এবং সে কারণে একে জ্ঞান মীমাংসাও বলা হয়। পরবর্তীকালে ব্রহ্মসূত্রের উপর রচিত বিভিন্ন টীকাও এই দর্শনকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে সাহায্য করেছে। এই সব টীকার মধ্যে শঙ্করাচার্যের অদ্বৈত ব‍্যাখ‍্যাই ভারতীয় জনজীবনে সর্বাপেক্ষা অধিক …

Read more

অগ্নিপুরাণ

অগ্নিপুরাণ সম্পর্কে আলোচনা করা হল। অগ্নিপুরাণ pdf download দেওয়া হল। অগ্নিপুরাণ সমগ্র পুরান সাহিত্যের মধ্যে অগ্নিপুরাণ কে প্রাচীন পৌরাণিক ও সাহিত্যবিদ্যার কোষগ্রন্থ বলা যায়। গ্রন্থে প্রদত্ত কিংবদন্তি অনুযায়ী মুনি বশিষ্ট সর্বজ্ঞ হওয়ার অভিলাষে অগ্নিদেবকে সর্ববিদ্যার উপদেশ দান করতে অনুরোধ করেছিলেন। তখন অগ্নি ১৬০০০ শ্লোকে সকল বিদ্যা সম্পর্কে যে সংক্ষিপ্ত উপদেশ দান করেন, তাই অগ্নিপুরাণ নামে …

Read more

যজুর্বেদ সংহিতা

যজুর্বেদ সংহিতা সম্পর্কে সম্পূর্ণ আলোচনা করা হল। যজুর্বেদ সংহিতা সামবেদ সংহিতা যেমন উদগাতার দুটি গ্রন্থ। যজুর্বেদ সংহিতাও তেমনি অধ্বর্য‍্যু প্রার্থনা গ্রন্থ। মহাভাষ‍্যের পতঞ্জলি ১০১টি শাখার কথা বলেছেন। কিন্তু বর্তমানে আমরা যজুর্বেদ শাখার ৫টি সংহিতা পাই। যথা- i) কঠসংহিতা, ii) কাঠসংহিতা, iii) মৈত্রায়ণী সংহিতা, iv) তৈত্তেরীয় সংহিতা এবং v) বাজসনেয়ী সংহিতা। যজুর্বেদ আবার কৃষ্ণ বা মিশ্র …

Read more

অথর্ববেদ সংহিতা

অথর্ববেদ সংহিতা সম্পর্কে আলোচনা করা হল। অথর্ববেদ সংহিতা অথর্ববেদের প্রাচীন নাম অথর্বাঙ্গিরসবেদ। অথর্ব এবং অঙ্গিরস এই শব্দ দুটি মিলে অথর্বাঙ্গিরস নামটি নিষ্পন্ন হয়েছে। অথর্ব কথাটির অর্থ ছিল অগ্নিপূজক ঋত্বিক্। এবং সম্ভবত সাধারণ পুরোহিতদেরও প্রাচীন নাম এইরূপই ছিল। কারণ অগ্নি উপাসক কথাটি প্রাচীনতম ইন্দো-ইরানীয় যুগ থেকে চলে এসেছে। জেন্দ আবেস্তা উল্লেখিত উপাসকেরা ভারতীয় অথর্ব পদের সাথে …

Read more

সামবেদ সংহিতা

সামবেদ সংহিতা সম্পর্কে আলোচনা করা হল। সামবেদ সংহিতার বিভাগ ও প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে আলোচনা করা হল। সামবেদ সংহিতা ঋকবেদ ও অথর্ববেদ সংহিতা দুটি সর্বসাধারণের কোন বিশেষ ধর্মীয় প্রয়োজনে রচিত হয়নি। সাহিত্য রচনার উদ্দেশ্যে এদের আবির্ভাব একথা বলা হলেও যজুর্বেদ ও সামবেদ সংহিতা দুটি সম্পূর্ণ আলাদা। এই দুটি সংহিতার যেসব মন্ত্র দেখতে পায় তা যজ্ঞের জন‍্য প্রয়োজনীয় …

Read more

ঋকবেদ সংহিতা

ঋকবেদ সংহিতা সম্পর্কে আলোচনা করা হল। ঋকবেদ সংহিতা পিডিএফ (pdf) বাংলা বেদ আলোচনা । ঋকবেদ সংহিতা চারটি সংহিতার মধ্যে ঋকবেদ সবচেয়ে প্রাচীন। ইন্দো-ইউরোপীয় জাতি ও ভাষার প্রাচীনতম সাহিত্য হিসাবে সকলেই ঋকবেদকে স্বীকার করেন। ম‍্যাকডোনালের মতে, “The Rigveda is undoubtedly the European languages”. অর্থাৎ, ” ইন্দো – ইউরোপীয় ভাষা সমূহের মধ্যে সাহিত্যের প্রাচীনতম নিদর্শন হল ঋগ্বেদ।” …

Read more